1. admin@bd24voice.com : BD24VOICE.COM : BD24 VOICE
  2. bd24voice@hotmail.com : BD 24 VOICE : BD 24 VOICE
  3. tusher719@gmail.com : BD 24 VOICE : BD 24 VOICE
  4. khandakarabusufian1994@gmail.com : BD 24 VOICE : BD 24 VOICE
শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:৫৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কিশোরগঞ্জ জেলা আঃ লীগ নেতা আনোয়ার কামালকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে স্থানান্তর কাঠ মোল্লাদের একাল সেকালের ফতোয়া – মুন্সি জাকির হোসেন জাতিসংঘে মাদক তালিকা থেকে বাদ গাঁজা এবং ওষুধ তৈরির অনুমতি ইন্টারপোলের রেড নোটিশঃ করোনা ভাইরাসের নকল ভ্যাকসিন বিক্রি হতে পারে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড ১৭ জন ভারতীয়কে আটক করেছে কিশোরগঞ্জ ও কুলিয়ারচর পৌরসভা নির্বাচন আগামী ১৬ জানুয়ারি ডেঙ্গু জ্বরে কিশোরগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সম্পাদিকার মৃত্যু কিশোরগঞ্জ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত যুবলীগের সাথে এক মিনিট লড়ার ক্ষমতা মামুনুল হকের নেই – নিক্সন চৌধুরী বাংলাদেশি কয়েকজন নাবিকদের জিম্মি করেছে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা

করোনা বিপর্যয়ের মধ্যেও দেশে নতুন কোটিপতির সংখ্যা বেড়েছে ৩ হাজার ৪১২ জন

নিজেস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত বৃহস্পতিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৫৭ বার পড়া হয়েছে

বাংলাদেশের করোনা বিপর্যয়ের মধ্যেও নতুন করে কোটিপতির সংখ্যা বেড়েছে ৩ হাজার ৪১২ জন। গত মার্চ থেকে জুন এই তিন মাসে ব্যাংকে কোটিপতি আমানতকারীর এই সংখ্যা বেড়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, গত জুন শেষে ব্যাংক খাতে কোটিপতি আমানতকারীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ৮৬ হাজার ৩৭ জনে দাঁড়িয়েছে। মার্চ শেষে এই সংখ্যা ছিল ৮২ হাজার ৬২৫ জন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্র জানায়, ২০১৯ সালে ক্যাসিনো বিরোধী অভিযান শুরুর পর ব্যাংকে কোটিপতির সংখ্যা কমে যায়। তখন ৩০ সেপ্টেম্বর ব্যাংকে কোটিপতি আমানতকারীর সংখ্যা কমে ৭৯ হাজার ৮৭৭ জন হয়েছিল। চলতি বছরের মার্চ থেকে জুন করোনা বিপর্যয় মধ্যেও হঠাৎ বেড়ে যায় সংখ্যা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত এক বছরে কোটিপতি আমানতকারী বেড়েছে ৫ হাজার ৬৪১ জন। এর মাঝে করোনা বিপর্যয় মধ্যেই বেড়েছে ৩ হাজার ৪১২ জন।

করোনা বিপর্যয়ের কারণে দেশের অনেক পরিবারের আয় কমে গিয়েছে। জাতিসংঘের ফুড এন্ড এগ্রিকালচার অর্গানাইজেশন এর সহযোগিতায় প্রেস ইউনিট বাংলাদেশ আয়োজিত এক ওয়েবিনারে জানানো হয়, করোনা বিপর্যয়ের কারণে বাংলাদেশের শতকরা ৭২.৬ শতাংশ পরিবারের আয় কমেছে। সে সকল পরিবারের বার্ষিক আয় এক লক্ষ টাকার কম, তারা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

বিশ্লেষকদের মতে, করোনা বিপর্যয়ের সাধারণ মানুষের আয় কমেছে। কিন্তু ধনীদের আয় বৃদ্ধি পেয়েছে।ব্যাংকে কোটিপতি আমানতকারী বেড়ে যাওয়ায় তার প্রমাণ।

স্বাধীনতার পর থেকে বাংলাদেশের মানুষ দারিদ্রের অভিশাপ থেকে মুক্তির জন্য প্রতিনিয়ত সংগ্রাম করে যাচ্ছে। পুঁজিবাদের অর্থনীতি নিয়ন্ত্রিত এই সমাজ ব্যবস্থায় দারিদ্রের অভিশাপ থেকে মুক্তি পাওয়া এক প্রকার অসম্ভব হয়ে পড়েছে সমসাময়িক প্রেক্ষাপটে যা করোনা বিপর্যয়ের কারণে সৃষ্টি হয়েছে। করোনার মহামারীতে বিশ্ব অর্থনীতি বিপর্যস্ত তেমনি ভাবে বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে এর প্রভাব স্বাভাবিকভাবেই পড়েছে। ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া থেকে মুক্তির জন্য দেশের সকল শিল্প কলকারখানা ও ব্যবসা-বাণিজ্য লকডাউন এর কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর ফলে স্বাভাবিকভাবেই মানুষের আয় কমেছে কিন্তু এই বিপর্যয় কোটিপতির সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় সংখ্যা কৌতূহল সৃষ্টি করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব