1. admin@bd24voice.com : BD24VOICE.COM : BD24 VOICE
  2. bd24voice@hotmail.com : BD 24 VOICE : BD 24 VOICE
  3. tusher719@gmail.com : BD 24 VOICE : BD 24 VOICE
  4. khandakarabusufian1994@gmail.com : BD 24 VOICE : BD 24 VOICE
শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৫১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কিশোরগঞ্জ জেলা আঃ লীগ নেতা আনোয়ার কামালকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে স্থানান্তর কাঠ মোল্লাদের একাল সেকালের ফতোয়া – মুন্সি জাকির হোসেন জাতিসংঘে মাদক তালিকা থেকে বাদ গাঁজা এবং ওষুধ তৈরির অনুমতি ইন্টারপোলের রেড নোটিশঃ করোনা ভাইরাসের নকল ভ্যাকসিন বিক্রি হতে পারে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড ১৭ জন ভারতীয়কে আটক করেছে কিশোরগঞ্জ ও কুলিয়ারচর পৌরসভা নির্বাচন আগামী ১৬ জানুয়ারি ডেঙ্গু জ্বরে কিশোরগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সম্পাদিকার মৃত্যু কিশোরগঞ্জ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত যুবলীগের সাথে এক মিনিট লড়ার ক্ষমতা মামুনুল হকের নেই – নিক্সন চৌধুরী বাংলাদেশি কয়েকজন নাবিকদের জিম্মি করেছে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা

মাত্র ১৪ রানে পতন ৭ উইকেট, পাঞ্জাব ও হায়দরাবাদ ম্যাচটি পাতানোর অভিযোগ

ক্রীড়া প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত রবিবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৪৭ বার পড়া হয়েছে

আইপিএলে অবিশ্বাস্য ঘটনা ঘটিয়ে ক্রিকেটপ্রেমীদের চমকে দিয়েছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। একদিকে অবিশ্বাস্য হলেও অনেক ক্রিকেটপ্রেমীদের দাবি এটি পাতানো ম্যাচ ছিল।

পাঞ্জাব বোলারদের তোপে ১৪ রানে ৭ উইকেট হারাল হায়দরাবাদ। মাত্র ১২৭ রানের টার্গেট দিয়ে সেই ম্যাচে হায়দরাবাদকে হারিয়ে দিল রাহুলের দল। অবিশ্বাস্যভাবে ম্যাচ জয় করে নিয়েছে পাঞ্জাব।

আইপিএলে আজকের ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ব্যাটিংয়ে নেমেই ব্যর্থ হয় মারমুখী ব্যাটসম্যানরা। ক্রিস গেইল, লোকেশ রাহুলদের নিয়ে গড়া বিগ হিটারের ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে মাত্র ১২৭ রানের টার্গেট দিতে পারে। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বোলারদের কাছে সেভাবে দাঁড়াতেই পারেনি পাঞ্জাবের ব্যাটসম্যানরা।

এই নাটকের ম্যাচে ১২৭ রান প্রয়োজন ছিল হায়দ্রাবাদের জয়ের জন্য।

হায়দ্রাবাদের বোলারদের তাণ্ডবে ব্যাট হাতে দাঁড়াতে একপ্রকার হিমশিম খেয়েছে পাঞ্জাব। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, নিকোলাস পুরানদের নিয়ে গড়া দল পুরো ২০ ওভার খেলে করতে পারল ৭ উইকেটে মোটে ১২৬ রান। অর্থাৎ মাত্র ১২৭ রান প্রয়োজন ছিল হায়দ্রাবাদের জন্য।

শনিবার (২৪ অক্টোবর) রাতের ম্যাচে শুরুটা বেশ ভালো ছিল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের। প্রথম ১০ ওভারে ১ উইকেটে ৬৬ রান তোলে তারা। এতোগুলো উইকেট হাতে রেখে বাকি ১০ ওভারে মারকুটে ইনিংস খেলে বড় সংগ্রহ দাড় করাবে পাঞ্জাব। এমন আশা করছিল সমর্থকরা। কিন্তু পরবর্তী কয়েক ওভারেই সমর্থকদের মাথায় হাত ওঠে নিশ্চিত। মাত্র ২২ রানের মধ্যে ৪টি উইকেট হারিয়ে ফেলে পাঞ্জাব।

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের অধিনায়ক রাহুল ২৭ বলে ২৭ রান করে রশিদ খানের ঘূর্ণিতে বোল্ড হন।গেইলও ২০ বলে ২০ রান করে জেসন হোল্ডারের বলে আউট হন।

সন্দ্বীপ শর্মার বলে আউট হন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ১৩ বলে ১২ রানের ছোট্ট ইনিংস খেলে। সন্দ্বীপ শর্মার দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন মান্দীপ সিং। আউটের আগে তিনি করেন ১৪ বলে ১৭ রান। দীপক হুদারাকে শুন্যরানে ফেরান আফগান স্পিনার রশিদ খান।

পাঞ্জাবের দেয়া ১২৭ রানের সহজ টার্গেট তাড়া করতে নেমেও ১২ রানে হেরে গেছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। শুরুতে ৩ উইকেট হারিয়ে ১০০ রান করে ফেলেছিল হায়দরাবাদ। জয়টা শুধু সময়ের ব্যাপার মাত্র। হায়দরাবাদ শিবিরে রীতিমতো উল্লাসের ধ্বনি শুরু হয়ে গেছে। আর এমন পরিস্থিতিতে ম্যাচ হাতছাড়া হয়ে যায় ডেভিড ওয়ার্নারদের। এরপর ১৪ রান করতে গিয়ে ৭ উইকেট হারায় হায়দরাবাদ।

পাঞ্জাবের বোলারদের অবিশ্বাস্য বোলিং নৈপুণ্যে ১১৪ রানেই অলআউট হয়ে হায়দরাবাদ। ২০ বলে ৩৫ রানের ইনিংস খেলে রবি বিষ্ণোইয়ের বলে আউট ওপেনিংয়ে নামা ওয়ার্নারে । যা হায়দরাবাদের ইনিংসের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংস।

অশ্বিনের বলে বোল্ড হন জনি বেয়ারস্টো ২০ বলে ১৯ রান করে। পরের ওভারে ৫ বলে ৭ রান করে মোহাম্মদ সামির বলে আউট হন আব্দুল সামাদ । ৯ ওভারের পর ৬৬ বলে হায়দরাবাদের দরকার মাত্র ৬০ রান। হাতে ৭ উইকেট। ৩৩ রান যোগ করে মনিশ পান্ডে ও বিজয় শঙ্করের জুটি জয়ের বন্দরেই নিয়ে যাচ্ছিলেন।

মনিশ পান্ডে ১০০ রানের মাথায় ১৫ রানে আউট হন । তখন ২৩ বলে প্রয়োজন ২৭ রান। ২৬ রান করে আর্শদ্বীপের বলে সাজঘরে ফেরেন বিজয়।

বিজয়ের আউট হওয়ার পরেই যেন তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে হায়দরাবাদের ব্যাটসম্যানরা। বিজয় আউট হওয়া পর আর মাত্র ৪ রান করতেই বাকি ৫ উইকেট পড়ে যায় হায়দরাবাদের। এক বল বাকি থাকতে ১১৪ রানে অলআউট হয়ে যায় হায়দরাবাদ।

রাতের আইপিএল ম্যাচে এ জয়ে প্লে-অফের আশা আরও জোরদার করল পাঞ্জাব। টানা চার ম্যাচে ৪ জয় নিয়ে পাঞ্জাবের পয়েন্ট ১০। তাদের অবস্থান ৫ নম্বরে। সমান ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে রয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্রিকেটপ্রেমীদের অভিযোগ হায়দ্রাবাদ ও পাঞ্জাবের এই ম্যাচ নিঃসন্দেহে পাতানো ছিল। এর আগেও আইপিএল অনেক পাতানো ম্যাচের ঘটনার জন্ম দিয়েছে এর ধারাবাহিকতায় এ ম্যাচ পাতানো ছিল। জয়ের দ্বারপ্রান্তে এসে ১৪ রানে পতন হয় ৭ উইকেট যা রীতিমতো অবিশ্বাস্য ও নাটকীয়। মাত্র ১৪ করে সাত উইকেট পতন হওয়া ম্যাচের দৃশ্যগুলো দেখলেই বুঝতে পারা সম্ভব এটি নাটকীয় ও পাতানো ম্যাচ। অনেক ক্রিকেটপ্রেমী চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন আইপিএল পরিচালনার দায়িত্বে থাকা সংশ্লিষ্টদের উপর।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব