1. admin@bd24voice.com : BD24VOICE.COM : BD24 VOICE
  2. bd24voice@hotmail.com : BD 24 VOICE : BD 24 VOICE
  3. tusher719@gmail.com : BD 24 VOICE : BD 24 VOICE
  4. khandakarabusufian1994@gmail.com : BD 24 VOICE : BD 24 VOICE
শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:১৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কিশোরগঞ্জ জেলা আঃ লীগ নেতা আনোয়ার কামালকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে স্থানান্তর কাঠ মোল্লাদের একাল সেকালের ফতোয়া – মুন্সি জাকির হোসেন জাতিসংঘে মাদক তালিকা থেকে বাদ গাঁজা এবং ওষুধ তৈরির অনুমতি ইন্টারপোলের রেড নোটিশঃ করোনা ভাইরাসের নকল ভ্যাকসিন বিক্রি হতে পারে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড ১৭ জন ভারতীয়কে আটক করেছে কিশোরগঞ্জ ও কুলিয়ারচর পৌরসভা নির্বাচন আগামী ১৬ জানুয়ারি ডেঙ্গু জ্বরে কিশোরগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সম্পাদিকার মৃত্যু কিশোরগঞ্জ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত যুবলীগের সাথে এক মিনিট লড়ার ক্ষমতা মামুনুল হকের নেই – নিক্সন চৌধুরী বাংলাদেশি কয়েকজন নাবিকদের জিম্মি করেছে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা

অটোরিকশা স্ট্যান্ড ও বিদ্যুত খুঁটির দখলে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, কর্তৃপক্ষের ভূমিকা রহস্যময়

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত রবিবার, ৮ নভেম্বর, ২০২০
  • ৫০৭ বার পড়া হয়েছে

দেশের প্রতিটি জেলা শহর সময়ের পরিবর্তনে আধুনিকতা ছোঁয়ায় যুগোপযোগী হয়ে বিকশিত হচ্ছে। জনসাধারণের সুবিধার্থে আগামীর জীবনযাত্রার যথাযথ মান উন্নয়নে সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণ করে বাস্তবায়নের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এক্ষেত্রে কিশোরগঞ্জ জেলা শহর বিপরীত অবস্থানে।

বর্তমান অসহনীয় যানজটে সৃষ্ট সমস্যাগুলো বিবেচনায় না নিয়ে অপরিকল্পিত নগরায়ন হচ্ছে কিশোরগঞ্জ জেলা শহরে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অবহেলায় জনদুর্ভোগের শহর হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে জেলা সদরের পৌরসভা।

কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের বর্তমান যানজটে চরম দুর্ভোগের কারণ হয়ে অচল করে নিচ্ছে শান্তিপূর্ণ এই শহরকে। আগামীতে যানজট সমস্যা মুক্তির জন্য শহরের রাস্তাঘাটের প্রশস্ততা বৃদ্ধির কোন সুযোগ নেই। বর্তমান অপরিকল্পিতভাবে নগরায়নের ফলে ঢাকার চেয়েও অচল শহর হতে যাচ্ছে কিশোরগঞ্জ।

কয়েক বছর পূর্বে পৌরসভার রাস্তাঘাট চলাচল অনুপযোগী থাকলেও বর্তমান চিত্র অতীতের তুলনায় অনেক ভাল। কিন্তু পৌরসভার সড়কের অনেকাংশ দখল করে রেখেছে বৈদ্যুতিক সঞ্চালন লাইনের খুঁটি। শহরের প্রতিটি রাস্তার প্রায় তিন ফুট ভিতরে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের খুঁটি। সড়কের সংস্কার কাজ করার সময় বিবেচনায় নেয়া হয়নি বৈদ্যুতিক খুঁটির বিষয়টিও। বর্তমানে এই বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ উদাসীন। জেলা শহরের প্রতিটি সড়ক থেকে বিদ্যুতের খুঁটি অপসারণ করলে প্রায় ৩/৪ ফুট প্রশস্ততা বৃদ্ধি পাবে। ফলে বর্তমান অসহনীয় যানজট থেকে অনেকাংশই মুক্তি সম্ভব।

এদিকে পৌরসভার গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার মোড়ে অবৈধ অটোরিকশা ও সিএনজি স্ট্যান্ড উচ্ছেদ না হওয়ায় যানজটের সমস্যা ক্রমেই অবনতির দিকে যাচ্ছে। অবৈধ স্ট্যান্ড উচ্ছেদ এর বিপরীতে দিনদিন নতুন স্ট্যান্ড যুক্ত হচ্ছে পৌরসভার সড়কে। শহরের ভিতরে অবৈধ অটোরিকশা ও সিএনজি স্ট্যান্ড যানজটের অন্যতম কারণ হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার পরে রহস্যজনকভাবে উচ্ছেদ করা হচ্ছে না। এ বিষয়ে এক প্রকার দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণ করছে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ।

জেলা শহরের রাস্তার দু’পাশে অপরিকল্পিত মার্কেট ও দোকানপাট গড়ে উঠেছে অতীতের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে। চলচলের সড়ক থেকে এক ফুট জায়গা না রেখেই নির্মাণ করা হচ্ছে মার্কেট ও দোকানপাট। বর্তমানে চলাচল সড়ক দখল করে দোকানপাট এর পণ্য ওঠানামায় ব্যবহৃত হচ্ছে। দু’পাশে মার্কেটগুলোতে কোন পার্কিং ব্যবস্থা না রেখেই নির্মিত হচ্ছে নতুন ভবন ও মার্কেটএসব দিক বিবেচনায় রেখেই কিশোরগঞ্জ পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ভবন ও মার্কেট নির্মাণের অনুমোদন দিচ্ছে। দু’পাশের ভবনগুলোতে পার্কিং ব্যবস্থা না থাকায় পার্কিংয়ের জন্য ব্যবহৃত হচ্ছে চলাচল সড়ক।

জেলা শহরে অসহনীয় যানজটের আরেকটি অন্যতম কারণ হচ্ছে হকারদের সড়ক দখল। গুরুত্বপূর্ণ চলাচল সড়কের দু’পাশে কয়েক ফুট জায়গা দখল করে রয়েছে সহস্রাধিক হকারদের অবৈধ দোকানপাট। মার্কেটে বহুতল ভবনে আগতদের গাড়ি পার্কিং, পণ্য ওঠানামা, হকার ইত্যাদির গুরুত্বপূর্ণ সড়ক দখলের কারণে চলাচলের রাস্তা সংকীর্ণ হয়েছে। চলাচলের জন্য থাকা সড়কের বাকি অংশ দিয়ে দুটি কাভার্ডভ্যান ক্রসিং করা এক প্রকার সম্ভব।

কিশোরগঞ্জ জেলা শহর আয়তনে অন্যান্য জেলা শহরের তুলনায় প্রায় অর্ধেক। অথচ এই ছোট্ট শহরে প্রতিদিন ১৩টি উপজেলা ও অন্যান্য জেলা থেকে লক্ষাধিক মানুষ বিভিন্ন কাজের কারণে প্রবেশ করে। প্রয়োজনীয় কর্ম শেষে প্রবেশ করা মানুষজন শহর ত্যাগ করে রাত দশটায় মধ্যে। ছোট্ট শহরে এমন অস্বাভাবিক চাপের কারণে যানজটে নাজেহাল ভুক্তভোগী সকল জনসাধারণ। প্রতিদিন এক প্রকার অচল শহরে পরিণত হচ্ছে কিশোরগঞ্জ। বর্তমান চিত্র এমন করুণ হলে ভবিষ্যতের যানজট মারাত্মক ভয়াবহ আকার ধারণ করবে।

কিশোরগঞ্জ পৌরসভা ও প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ভবিষ্যতের বিবেচনায় সঠিক পরিকল্পনা এখনই গ্রহণ করতে ব্যর্থ হলে ভবিষ্যতের মারাত্মক বিপর্যয় ভোগ করতে হবে কিশোরগঞ্জ জেলায় বসবাসরত সকল জনসাধারণকে। জনদুর্ভোগের সকল চিহ্নিত কারণগুলো গুরুত্ব সহকারে বিবেচনায় নিয়ে সমস্যা সমাধানে বাস্তবমুখী পদক্ষেপ ভয়াবহ বিপর্যয় থেকে রক্ষা করবে কিশোরগঞ্জ জেলা শহর।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব